চুক্তি

মৃত্যুর ঠিক পাশে আমি শুয়ে
একটা ক্রসিং, আমি আর একখানা বাইক
ততখানি দূরত্ব বজায় রেখেছিলাম
যতখানি দূরত্বে একটা প্রাণ বেঁচে যায়।
হাতের রেখার মৃত্যু যেন আমার ছুঁতে সেদিন অস্বীকার করেছে!

আমার যে অনেক কথা রাখার কথা আছে
মরন যজ্ঞে তা যেন জল ঢেলে পন্ড করেছে!

মাকে ও কথা দেওয়া আছে
মায়ের অন্ধকারময় স্বপ্নগুলো নক্ষত্রের আলোয় ভরিয়ে দেব
ধ্বংসের মুখ থেকে ফিরিয়ে আনব শত প্রাণ
জোয়ারের জলের মতো ভরিয়ে তুলবো শুষ্ক উপত্যকায় তারুণ্যের দীপ্তি
সৈনিকের মতো লুণ্ঠনকারীদের হাত থেকে ছিনিয়ে আনব মা বোনের সম্মান।

মৃত্যু তুমি বরং শ্যামবাজার পাঁচ মাথার মোড়ে অপেক্ষা করো,
পৃথিবীর বুকে রেনেসাঁসের প্রাণ প্রতিষ্ঠা করে তারপর তোমার পাশে মাথা তুলে দাঁড়াব আমি।