কলকাতা: সম্প্রতি এক সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি সভাঘরে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘আদম’ সম্মাননা জ্ঞাপনের অনুষ্ঠান। সভার শুরুতে স্বাগত ভাষণ দেন আদম পত্রিকার সম্পাদক গৌতম মণ্ডল। এরপর সদ্যপ্রয়াত কবি গীতা চট্টোপাধ্যায়ের স্মৃতির উদ্দেশ্যে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। সূচনা সংগীত পরিবেশন করেন শুদ্ধেন্দু চক্রবর্তী।

কালীকৃষ্ণ গুহ এবং দেবারতি মিত্রর কবিতা নিয়ে আলোচনা করেন দেবদাস আচার্য এবং সুধীর দত্ত। কবি, সম্পাদক এবং গবেষক আবদুল মান্নান সৈয়দকে নিয়ে বক্তব্য রাখেন গৌতম বসু। এদিন আজীবন কবিতাযাপন ও কবিতায় বিশেষ অবদানের আদম সম্মাননা জ্ঞাপন করা হয় কালীকৃষ্ণ গুহ এবং দেবারতি মিত্রকে।

তাঁদের হাতে মানপত্র এবং সম্মাননা-অভিজ্ঞান তুলে দেন শঙ্খ ঘোষ এবং অমিয় দেব। মানপত্র পাঠ করেন হেমন্ত বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দেবাশিস চন্দ। অরুণাভ সরকার সম্পাদিত ভাষালিপি পত্রিকাকেও সম্মানিত করা হয়। তরুণ কবি হিসেবে তিনজন তরুণ কবি ওই সভায় সম্মানিত হয়। এঁরা হলেন জগন্নাথদেব মণ্ডল, দীপান্বিতা সরকার এবং হিমালয় জানা। এঁরা তিনজনই কবিতাপাঠে অংশগ্রহণ করেন। এঁদের হাতে মানপত্র তুলে দেন শঙ্খ ঘোষ।

মানপত্রগুলি পাঠ করেন শুদ্ধেন্দু চক্রবর্তী, উজ্জ্বল ঘোষ এবং অনিমেষ মণ্ডল। সম্মাননা-অভিজ্ঞান এবং পুরস্কারের অর্থমূল্য তুলে দেন অমিয় দেব, গৌতম বসু এবং পলাশ বর্মন। সভা শেষে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন কালীকৃষ্ণ গুহ, দেবারতি মিত্র এবং অমিয় দেব। ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে এনআরসিজনিত কারণে গণ্ডগোল হওয়ায় এই সভায় বাংলাদেশের সম্মাননা প্রাপকরা উপস্থিত হতে পারেননি। আদম পত্রিকার সম্পাদক গৌতম মণ্ডল জানিয়েছেন, আদম সম্মাননা প্রকাশের দিন বাংলাদেশের প্রাপকদের আদম সম্মাননা জ্ঞাপন করা হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য তরুণ কবি হিসেবে আদম সম্মাননা পাওয়ার কথা হাসান রোবায়েত এবং শ্বেতা শতাব্দী এষের। লিটল ম্যাগাজিন বিভাগ অনিকেত শামীম সম্পাদিত ‘লোক’ পত্রিকাকেও এই সম্মাননা জানানো হবে। সম্পাদনা, গবেষণা এবং কবিতারচনা বিভাগে মরণোত্তর আদম সম্মাননা জানানো হবে আবদুল মান্নান সৈয়দকে।